পাঁচ বীরাঙ্গনার কথা বলবে ‘ইচ্ছেমতো’

পুরাণবর্ণিত এগারোজন নারীর বয়ানে মাইকেল মধুসূদন দত্ত লিখেছিলেন তাঁর ‘বীরাঙ্গনা কাব্য’। তাঁর দৃষ্টিতে যাঁরা ছিলেন ‘বীরাঙ্গনা’। আর এবার, তাঁদের মধ্যে থেকে পাঁচজনকে নিয়ে ‘ইচ্ছেমতো’ নাট্যদল আনছে তাদের নতুন প্রযোজনা।

নাটকটি পরিচালনা করছেন ‘ইচ্ছেমতো’ নাট্যদলের তূর্ণা দাশ, এক বীরাঙ্গনার চরিত্রে অভিনয়ও করছেন তিনি। ‘71/1 MB’-র তরফ থেকে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘গতবছর একটি নাটকে আমি পরিচালনা করার সুযোগ পেয়েছিলাম। বিভাসবাবু (বিভাস চক্রবর্তী) বলেছিলেন ব্রেখ্‌টের একটি নাটক করতে।’ ব্রেখ্‌টের ‘দ্য স্পাই’ অবলম্বনে তূর্ণা সফলভাবে পরিচালনা করেছিলেন ‘খোচর’ নাটকটি।

আর তারপর, এই বছরেও আরো একটি নাটক পরিচালনা করার ভার তাঁকে দেন বিভাসবাবুই। মধুসূদন দত্তের দ্বিশতবার্ষিকী জন্মজয়ন্তী উপলক্ষ্যে তিনি পরিচালনা করছেন ‘বীরাঙ্গনা কাব্য’। ইতিমধ্যেই, গত ২৯শে ডিসেম্বর, ‘অন্য থিয়েটার’ আয়োজিত ‘নাট্যস্বপ্নকল্প’তে অভিনীত হয়েছে এটি।

কিন্তু নাটকের পোস্টারে কাব্যের এগারোটি চরিত্রের কেবল পাঁচজনকে দেখা যাচ্ছে কেন? তূর্ণা জানিয়েছেন, যে পাঁচটি চরিত্রের কথা পড়ে তাঁর মনে হয়েছে, যে এঁদের মাধ্যমে তিনি অথবা এযুগের যেকোনো নারী ‘সবচেয়ে শক্তিশালীভাবে’ সমাজকে বলতে পারবেন নিজের মনের কথা, তাঁদেরই তিনি বেছে নিয়েছেন এই নাটকের জন্য।

কোন পাঁচ চরিত্রকে বাছাই করেছেন তিনি? জানা যাচ্ছে, তারা, কৈকেয়ী, সূর্পনখা, দুঃশলা ও জনা-কে তাঁরা তুলে ধরবেন দর্শকদের সামনে। অভিনয়ে তূর্ণা ছাড়াও রয়েছেন অঙ্কিতা মাঝি, সুপর্ণা দাস, সুলগ্না নাথ এবং ঋত্বিকা নাথ। নাটকের সৃজনশীল পরিচালনার দায়িত্বে থাকছেন সৌরভ পালোধী, সঙ্গীতের দায়িত্ব রয়েছে দেবদীপ মুখার্জীর হাতে।

‘ইচ্ছেমতো’র নতুন প্রযোজনা ‘বীরাঙ্গনা কাব্য’ মঞ্চস্থ হবে আগামীকাল, ১৭ই জানুয়ারি, সন্ধ্যে সাতটায়, গিরিশ মঞ্চে। কে বলতে পারে, হয়ত তারা-জনা’দের সঙ্গে দর্শক মিলিয়ে-মিশিয়ে ফেলবেন তূর্ণাদের!

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top