বোলপুরের আদুরিয়ায় যাত্রা শুরু শিবু-নন্দিতার ‘বহুরূপী’র

আগেই জানা গিয়েছিল, নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের হাত ধরে চলতি বছরের পুজোতেই মুক্তি পেতে চলেছে ‘বহুরূপী’। আজ, ১২ই মার্চ শুরু হল সেই ছবির শ্যুটিং।

‘বহুরূপী’র ক্ল্যাপস্টিকের ছবি নিজেদের অফিসিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছে ছবির প্রযোজনা সংস্থা ‘Windows Production House’। সংস্থার তরফ থেকে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, ‘সবার আশীর্বাদ এবং ভালবাসা নিয়ে আজ থেকে শুরু হলো বহুরূপীর যাত্রা।’ আজ সকাল সাড়ে আটটায় বোলপুরের আদুরিয়া জঙ্গলে শুরু হয়ে গেল ছবির শ্যুটিং। জানা গিয়েছে, অন্তত দশদিন শ্যুটিং হওয়ার কথা রয়েছে এই অঞ্চলে। প্রথমদিনেই শ্যুটিংয়ে অংশগ্রহণ করেছেন পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় স্বয়ং। তাঁর সঙ্গে ছিলেন কৌশানী মুখোপাধ্যায় এবং প্রদীপ ভট্টাচার্য্য।

ছবিতে দেখা যেতে চলেছে আবির চট্টোপাধ্যায়, ঋতাভরী চক্রবর্তী, কৌশানী মুখোপাধ্যায়, শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় এবং বর্ষীয়ান অভিনেতা প্রদীপ ভট্টাচার্য্যকে। ছবির ফার্স্টলুক পোস্টারে দেখা গিয়েছিল, একটি বহুরঙা চোখের ছবি।

ছবির কাজ এখন শুরু হলেও, ২০১১ সাল থেকেই পরিকল্পনা চলছে এই ছবি তৈরীর। জানা গিয়েছে, প্রায় ৪০দিন ধরে চলবে ছবির শ্যুটিং। ছবির প্রেক্ষাপট ১৯৯৮ থেকে ২০০৩-’০৫ সালের মধ্যে। বাংলায় ঘটে যাওয়া কিছু সত্য ঘটনা অবলম্বনেই তৈরী হয়েছে এই ছবি। শিবপ্রসাদ-নন্দিতার এর আগের ছবি ‘রক্তবীজ’-ও সত্য ঘটনা অবলম্বনেই তৈরী হয়েছিল। সেই ছবিতেও মুখ্য চরিত্রে দেখা গিয়েছিল আবিরকে। কেবল যথেষ্ট জনপ্রিয় নয়, ব্লকবাস্টার হিট হয়েছিল সেই ছবি।

পরিচালক জানিয়েছেন, ‘ভীষণভাবে সত্যনির্ভর এই ছবি। এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত চরিত্ররা এখনও বেঁচে রয়েছেন। তাঁরা ছবির সঙ্গে ভীষণভাবে যুক্ত। তাঁরা জবানবন্দিও দিয়েছেন, ছবিটা করার জন্য।’ ছবিটার সঙ্গে একই বিষয় নিয়ে একটি তথ্যচিত্রও তৈরী করতে চলেছেন তাঁরা। এই ছবিটি ছাড়া ‘আমার বস’ ছবির কাজ শেষ করেছেন তাঁরা। সেই ছবিতে রাখী গুলজারের সঙ্গে কাজ করেছেন তাঁরা।

গতবার পুজোয় তাঁদের ‘রক্তবীজ’ মন জিতেছে দর্শকদের। এবার পুজোয় আবারও তাঁরা বক্সঅফিস কাঁপাতে পারেন কিনা, তারই অপেক্ষায় দর্শকেরা।

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top