এপার বাংলার ছবিতে পরীমণি, সঙ্গে থাকছেন কারা?

ওপার বাংলায় যথেষ্ট জনপ্রিয় নাম পরীমণি। এপার বাংলাতেও কম মানুষ চেনেন না তাঁকে। এবার এপার বাংলারই একটি ছবিতে কাজ করতে চলেছেন তিনি।

জানা গিয়েছে, দেবরাজ সিংহ পরিচালিত ছবি ‘ফেলু বক্সী’তে কাজ করবেন পরীমণি। সঙ্গে আরো দুই মুখ্য চরিত্রে থাকছেন এপার বাংলার দুই জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রী সোহম এবং মধুমিতা। ‘ফেলু বক্সী’ নামটা শুনেই ভ্রূ কুঁচকোচ্ছে? ভাবছেন, দুই বিখ্যাত চরিত্রের নাম মিশিয়ে এ কোন চরিত্র তৈরী হল?

তাহলে জানিয়ে রাখা ভাল, ফেলু বক্সী কোনো পুরনোকালের চরিত্র নয় একেবারেই। নিতান্ত আধুনিক একটি চরিত্র এই ফেলু বক্সী, যার প্রযুক্তির জ্ঞান নেহাত মন্দ নয়। স্বভাবে সে রসিকও বটে, আবার ভোজনরসিকও বটে। খাওয়া আর গোয়েন্দাগিরি করাই তার নেশা এবং পেশা। জনপ্রিয় অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীকে এই ছবিতে দেখা যাবে নামভূমিকায়, অর্থাৎ ফেলু বক্সীর চরিত্রে।

অন্যদিকে, এই ছবিতে পরীমণির চরিত্রের নাম লাবণ্য। তাঁর চরিত্রটি বেশ জটিল, তবে সঠিক সময়ে হয়ত চরিত্রের অনেক গোপন কথাই জানতে পারবেন দর্শকেরা। মধুমিতা সরকার এই ছবিতে অভিনয় করছেন দেবযানী নামে এক রেডিও জকির চরিত্রে। রহস্য সমাধানে সে ফেলু বক্সীকে সাহায্য করতে চায়। বোঝা যায়, মনে হয়ত ফেলুর জন্য অনুভূতিও রয়েছে তাঁর!

বড়পর্দায় তিন অভিনেতা-অভিনেত্রীর রসায়ন দেখার অপেক্ষায় রয়েছেন ভক্তেরা। জানা গিয়েছে, আগামী ২৭শে মার্চ শুরু হতে চলেছে এই ছবির শ্যুটিং। তার আগেই শ্যুটিংয়ের জন্য বাংলাদেশ থেকে এদেশে চলে আসবেন পরীমণি। দুই বাংলার সম্মিলিত উদ্যোগে ছবি তৈরী হয়েছে এর আগেও। এই ছবিতে পরীমণির উপস্থিতি দুই বাংলার সৌহার্দ্যবন্ধনকে দৃঢ়তর করবে, তা বলাই বাহুল্য!

‘শিবপুর’, ‘আবার অরণ্যে দিন রাত্রি’র মত ছবি প্রযোজনা করেছে ‘Indo Americana Production’। সেই প্রযোজনা সংস্থার এক্সিকিউটিভ প্রযোজক সৃজিত আয়ুষ্মান সরকারও অভিনয় করবেন এই ছবিতে।

এই ছবির সিনেমাটোগ্রাফির দায়িত্বে আছেন ‘ভিঞ্চিদা’-খ্যাত সুদীপ্ত মজুমদার। সঙ্গীতের দায়িত্বে আছেন অদিতি বসু এবং অম্লান চক্রবর্তী। ‘Himani Films’ এবং ‘Medianext Entertainment’ প্রযোজিত এই ছবি মুক্তি পেতে চলেছে এই বছরের শেষে।

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top