‘ও অভাগী’র প্রিমিয়ারে চাঁদের হাট

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের লেখা ছোটগল্প ‘অভাগীর স্বর্গ’ অবলম্বনে একটি চলচ্চিত্র বানিয়েছেন পরিচালক অনির্বাণ চক্রবর্তী। গতকাল প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে ‘ও অভাগী’। সেইসঙ্গে, অনুষ্ঠিত হয়েছে ছবির প্রিমিয়ারও।

প্রিমিয়ার লঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ছবির সকল কলাকুশলীরা। তাঁরা ছাড়াও, উপস্থিত ছিলেন ছবির মুখ্য চরিত্রের অভিনেত্রী রাফিয়াদ রশিদ মিথিলার স্বামী পরিচালক সৃজিত মুখার্জীও।

ছবির মুখ্য চরিত্র অভাগীর ভূমিকায় দেখা যাবে দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াদ রশিদ মিথিলাকে। তাঁর পুত্র, কাঙালীর চরিত্রে অভিনয় করবেন সৌরভ হালদার।

অভাগীর স্বামী রসিক বাঘের চরিত্র ফুটিয়ে তুলবেন সায়ন ঘোষ। গল্পের মতই এ ছবির মধ্য দিয়ে ফুটে উঠবে ছয়-সাতের দশকের গ্রাম-বাংলার প্রতিচ্ছবি।

নিম্নবিত্ত, নীচুজাতের স্বামী-পরিত্যক্তা এক মহিলা অভাগী। কিন্তু ছোটবেলায় গ্রামের এক যাত্রাপালায় যমরাজকে দেখে ভারী ভাল লেগেছিল তার। ‘দাহের পর কেবল সচ্চরিত্রা নারীরাই স্বর্গে স্থান পায়’, তাঁর এইধরনের কথাগুলো মনে গেঁথে গিয়েছিল অভাগীর।

মৃত্যুর পরে ছেলে কাঙালি মুখাগ্নি করবে, এই ছিল তার স্বপ্ন। মৃত্যুর আগে সে কাঙালিকে সিঁদুর, আলতা আর পোড়ানোর কাঠ যোগাড় করতে বলে। আলতা-সিঁদুর পেলেও, দাহের কাঠ জোগাড় করতে পারে না কাঙালি।

সকলের কাছে তাকে শুনতে হয়, ‘নীচুজাতের মড়া’ পোড়ানোর দরকার হয় না, কবর দিলেই যথেষ্ট। সারাজীবন যে আগুনের স্বপ্ন দেখেছিল অভাগী, সে আগুন জ্বলতে থাকে তার বালক ছেলের চোখে।

মিথিলা, সায়ন আর সৌরভ ছাড়াও, সুব্রত দত্ত, দেবযানী চট্টোপাধ্যায়, ঈশান মজুমদার, জিনিয়া পাণ্ডে, কৃষ্ণ ব্যানার্জীকে দেখা যাবে এই ছবিতে। ছবির সঙ্গীত পরিচালনা করছেন মৌসুমী চ্যাটার্জী।

এ ছবিতে গান গেয়েছেন লগ্নজিতা চক্রবর্তী, রূপঙ্কর বাগচী, চন্দ্রাণী ব্যানার্জী, অনিমেষ রায় এবং অনির্বাণ রায় আকাশ। ছবির ক্যামেরার দায়িত্বে থাকছেন মলয় মণ্ডল, সম্পাদনার দায়িত্ব থাকছে সুজয় দত্তরায়ের হাতে।

সতী হওয়ার বাসনা আর সমাজের জাতিভেদের এক অসম যুদ্ধ ফুটে উঠবে ‘স্বভূমি এন্টারটেইনমেন্ট’ নিবেদিত, প্রবীর ভৌমিক প্রযোজিত এই ছবিতে। গতকাল মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবি মানুষের মন কাড়তে পারে কিনা, সেটাই এখন দেখার।

 

 

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top