Hoichoi: ‘Hello’র পর ফের দাম্পত্যে প্রতারণার শিকার রাইমা, প্রকাশ্যে ‘কলঙ্ক’-এর ট্রেলার

   ‘হ্যালো’, ‘ইন্দু’, ‘গোরা’ বা ‘গভীর জলের মাছ’ – সাহানা দত্তের প্রতিটি সিরিজই সাফল্যের মুখ দেখেছিল বিনা আয়াসেই। আর এবার, আগামী ১৯শে জানুয়ারি তাঁর প্রযোজনা সংস্থা ‘Missing Screw’ থেকে আসছে তাঁর নতুন সিরিজ ‘কলঙ্ক’। পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন অভিমন্যু মুখার্জী।

কলেজজীবনের দুই বন্ধু চৈতী আর রঙ্গনের ২০ বছরের সুখী দাম্পত্যজীবন। রয়েছে দুই সন্তানও। একটা অদ্ভুত চুক্তি ছিল তাদের মধ্যে। যদি কখনো তারা অন্য কারোর প্রেমে পড়ে, পরস্পরকে তারা মিথ্যে বলবে না। রঙ্গন স্ত্রীকে জানায় কঙ্কনার সঙ্গে তার পরকীয়ার কথা, আর তারপরেই ভাঙন ধরতে শুরু করে তাদের সুখী পরিবারে। এতবড় সত্যিটা সহ্য করতে পারেনা চৈতী। তারই কথায় রঙ্গন মিথ্য়ে বলা শুরু করে তাকে, কিন্তু লুকিয়ে সত্যকে ছোঁয়ার সূত্রও দিতে থাকে। চৈতী বুঝতে পারে, চুক্তি করাটা তাদের ভুল ছিল। এই ভুলের মাশুল দিতে কোনদিকে বয়ে যাবে তাদের জীবনের স্রোত?

‘হ্যালো’র পর, সাহানা দত্তরই নতুন সিরিজের হাত ধরে ফের Hoichoi ওটিটি প্ল্যাটফর্মে ফিরছেন রাইমা সেন (চৈতী)। ‘হ্যালো’র মতই এই সিরিজেও তাঁর ‘লুক’ সাধারণ বাঙালী গৃহবধূর মতই। তাঁর বিপরীতে রয়েছেন অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী (রঙ্গন)। এছাড়াও গতকাল মুক্তি পাওয়া ট্রেলারে দেখা মিলেছে গৌরব চক্রবর্তী (বিহান), অম্বরীশ ভট্টাচার্য (বাসব), সৃজলা গুহর (কঙ্কনা)।

ট্রেলার প্রকাশের আগে তেমন কিছু জানানো হয়নি প্রযোজনা সংস্থার তরফ থেকে। তবে ইতিমধ্যে ট্রেলার ছাড়াও Hoichoi-এর তরফ থেকে একটি ‘সিরিজ প্রিভিউ’ প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, ২০তম বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কেক কাটছে চৈতী-রঙ্গন। কিন্তু কেক কাটার মুহূর্তে তার দেখতে পায়, কেকের উপরে লেখা রয়েছে অদ্ভুত শব্দবন্ধ, ‘হ্যাপি অ্যানিভার্সারী লায়ার’, যা দেখে বিস্মিত হয় দু’জনেই।

সিরিজের ট্রেলার ও ঝলক দেখে বোঝাই যাচ্ছে, ফ্যামিলি ড্রামা হলেও পরতে পরতে টুইস্ট ছড়িয়ে রয়েছে সিরিজে। আশা করা যায়, সাহানা দত্তের আগের সিরিজগুলোর মতই দর্শকদের ভালবাসা পাবে ‘মিথ্যে দিয়ে সত্যি ছোঁয়ার সিরিজ’ ‘কলঙ্ক’। ‘কলঙ্ক’ ছাড়াও Hoichoi ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আসছে সাহানা দত্তের আরো তিন সিরিজ, ‘ইন্দু’, ‘গোরা’ ও ‘গভীর জলের মাছ’-এর সিক্যোয়েল।

 

 

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top