Sedin Kuyasha Chilo: পরান-লিলি-জিতুর স্পর্শে কাটবে কুয়াশা?

সম্পর্কের সুতোগুলো ঠিক কোন নিয়মে বোনা হয়, তা কেউ জানে না। তবে ভালবাসা, স্নেহ, কি বন্ধুত্ব – বেশীরভাগ সম্পর্কেরই একটা বড় অংশ জুড়ে থাকে অপেক্ষা। Sand ARC Media Production প্রযোজিত ছবি ‘সেদিন কুয়াশা ছিল’তে তিনটি গল্পের মধ্য দিয়ে এমনই কিছু সম্পর্কের গল্প ফুটে উঠবে। গত শনিবার, ২৭শে জানুয়ারি, পরিচালক অর্ণব মিদ্যা এবং ছবির বাকী কলাকুশলীদের উপস্থিতিতে মুক্তি পেল ছবিটির ট্রেলার।

২০২২ সালে লুক প্রকাশের সময়েই বোঝা গিয়েছিল, ছবির নামে ‘কুয়াশা’ থাকলেও, বিন্দুমাত্র ‘কুয়াশা’র চিহ্ন নেই কাস্টিংয়ে। সে তালিকা রীতিমত তারকাখচিত। জিতু কমল, পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, লিলি চক্রবর্তী ছাড়াও এ ছবিতে রয়েছেন সৌরসেনী মৈত্র, অর্ণ মুখোপাধ্যায়, সবুজ বর্ধন, দেবশঙ্কর হালদার, খরাজ মুখার্জী, জয় সেনগুপ্ত, সায়ন্তনী গুহঠাকুরতা, অবন্তিকা বিশ্বাস। এ ছবিতে প্রথমবার জুটি বাঁধছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও লিলি চক্রবর্তী। চমক রয়েছে আরো। এ ছবির হাত ধরেই ডেবিউ করছেন বর্ষীয়ান অভিনেতা পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাতনি পৃথা এবং অর্ণ মুখোপাধ্যায়ের স্ত্রী উপাবেলা।

মূলত বিভিন্ন ধরনের ভালবাসার গভীরতাকেই ‘ফ্রেমে’ ধরবে এই ছবি। ছবিতে তিনটি গল্পের মধ্যে প্রথম গল্পের প্রেক্ষাপট স্বাধীনতা-পূর্ববর্তী সময়ের। এই গল্পে বিপ্লবী নরেনের চরিত্রে দেখা যাবে অর্ণ মুখোপাধ্যায়কে। সৌরসেনী থাকছেন গৃহবধূ সুলক্ষণার চরিত্রে, তাঁর স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করছেন সবুজ বর্ধন। স্বদেশের প্রতি ভালবাসার ছবি আঁকা হয়েছে এই গল্পে। দ্বিতীয় গল্পে, সন্তানের প্রতি বাবা-মায়ের নিঃশর্ত ভালবাসার ছবি দেখা যাবে। বাবা (পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়) এবং মায়ের (লিলি চক্রবর্তী) কাছে ফেরা হয় না সায়ন্তনের (জিতু)। তাঁর মেয়ের চরিত্রেই থাকছেন ছ’বছরের পৃথা। চিত্রশিল্পী অগ্নি (দেবশঙ্কর হালদার), লেখক বরুণ (খরাজ মুখার্জী) এবং পরিচালক ইন্দ্রের (জয় সেনগুপ্ত) বন্ধুত্বের রসায়নও দেখাবে এই ছবি। দূরত্ব ভালবাসাকে আরো গভীর করে তোলে কিনা, সে প্রশ্নও জাগাবে ‘সেদিন কুয়াশা ছিল’।

ছবিতে নচিকেতা চক্রবর্তী, খরাজ মুখার্জী, লগ্নজিতা চক্রবর্তী, শাওনি মজুমদার এবং নিষ্ঠা সিংহের কণ্ঠে শোনা যাবে গান। ছবির সম্পর্কে পরিচালক বলেন, ‘আমাদের প্রতিদিনের চাওয়া-পাওয়া, কর্তব্যবোধ, সম্পর্কের বিভিন্ন সমস্যা এসবের গল্পই বলবে এই ছবি। যে ঘটনাগুলোর ওপর আমাদের কোনো হাত নেই, সেগুলোকে অন্যরকমভাবে দেখা যাবে এ ছবিতে।’ অর্ণব মিদ্যা পরিচালিত এই ছবি আগামী ৯ই ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে প্রেক্ষাগৃহে।

Author

  • Debasmita Biswas

    বেথুন কলেজ থেকে উদ্ভিদবিদ্যায় স্নাতক। পড়ার নেশা ছোট থেকে, প্রাথমিকভাবে লেখালেখির শুরু শখেই। তারপর সংবাদপত্র, পত্র-পত্রিকায় সমালোচনা পড়ার অভ্যাস আর বিভিন্ন নাটক, সিনেমা দেখার পর বিশ্লেষণ করার শখ থেকেই ইচ্ছে সমালোচক হওয়ার। বিনোদনজগতের বিভিন্ন খবর করার পাশাপাশি নাটক এবং সিনেমা দেখে তার গঠনমূলক সমালোচনাও করেন তিনি।

Scroll to Top